ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ || ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬
Breaking:
গতকাল “৭ ই মার্চের মহাকাব্য” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়      আমরা একটি রাজনৈতিক নির্দেশনা নিয়ে চলি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী      ভারতের রাজধানী দিল্লিতে চলা সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪      রোহিঙ্গাদের মাঝে হেপাটাইটিস সি ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব আশংকাজনক বেশি     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  ওমরাহ ও ভিজিট ভিসায় আপাতত সৌদি আরব যেতে পারবেন না        মুক্তিযুদ্ধের প্রধান মিত্র দেশ হিসেবে ভারতকে মুজিববর্ষে আমন্ত্রণ:সেতুমন্ত্রী        এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে আগাম কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে:প্রধানমন্ত্রী        শপথ নিয়েছেন ঢাকার নবনির্বাচিত মেয়র তাপস ও আতিকুল     

আটাশে নির্মূল কমিটি : প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা

আটাশে নির্মূল কমিটি : প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা

অধ্যাপক ডা.মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল):মুজিববর্ষ উদযাপনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা সেদিন দেখা হতেই সহাস্যে বললেন, ‘আপনার জন্য সুখবর আছে। মুজিববর্ষে সরকার বঙ্গবন্ধু পদক প্রবর্তন করতে যাচ্ছে’। আমাকে বলার কারণ গত বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে আমার লেখা একটি প্রবন্ধে প্রসঙ্গটির অবতারণা করেছিলাম। লেখাটি দৈনিক জনকণ্ঠে ছাপা হয়েছিল। তবে এ কথাও সত্যি যে এটি আমার মৌলিক চিন্তাপ্রসূত নয়।

০৬:২৯ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০২০ রোববার

বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ,বাকশাল :অধ্যাপক ডা.মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ,বাকশাল :অধ্যাপক ডা.মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

অধ্যাপক ডা.মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)ঃ ঘটনাটি যখন ঘটে তখন আমি কলকাতায়। এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি সম্মেলনে যোগ দিতে যাওয়া। প্রথম জানতে পারলাম অনুজপ্রতিম সাংবাদিক অঞ্জন রায়ের ইনবক্স করা মেসেজে। কাদের মোল্লাকে ‘শহীদ’ বলে দৈনিক সংগ্রামের শিরোনামটির ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন অঞ্জন। সঙ্গত এবং যৌক্তিকও নিঃসন্দেহে। তাতেই ক্ষেপেছে জামায়াতীরা। অঞ্জনের চৌদ্দপুরুষ উদ্ধারের যজ্ঞ চলছে ফেসবুকে।

০৬:৩৫ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০২০ রোববার

১০ জানুয়ারী রাজনৈতিক ইতিহাসের এক অবিস্মরণীয় দিন

১০ জানুয়ারী রাজনৈতিক ইতিহাসের এক অবিস্মরণীয় দিন

মকিস মনসুর: তোমার আগমনে এলো পূর্নতা ;রক্তে কেনা বাঙ্গালীর স্বাধীনতা। আজ ১০ জানুয়ারী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস.।  বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে প্রবাসী সরকার তার নির্দেশনা অনুসরণ করে স্বাধীনতা অর্জনের পথে মুক্তিযোদ্ধা, জনতা ও মিত্রবাহিনীর যৌথ সংগ্রামে নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধের এক পর্যায়ে বাঙালীর বিজয়  চূড়ান্ত রূপ নিতে শুরু করে.। বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হলে পাকিস্তানি বর্বর শাসকগোষ্ঠী বাধ্য হয় তাকে সসম্মানে মুক্তি দিতে।   নয়  মাস ১৪ দিন কঠিন কারাভোগ করে ১৯৭২ সালের ৮ জানুয়ারী  পাকিস্তানে বন্দীদশা থেকে মুক্তি পেয়ে পাকিস্তান থেকে লন্ডন যান  তারপর দিল্লি হয়ে  বাঙালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা ও মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের মাটিতে  ১৯৭২ সালের এদিন বেলা ১টা ৪১ মিনিটে  রক্তস্নাত স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের মাটিতে ফিরে আসেন.।

১১:৫১ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার

আবারো দশ,এবারের দশ:অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

আবারো দশ,এবারের দশ:অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল):ইতিহাসের সন্ধিক্ষণে বাংলাদেশ! ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টিয়ে আবারো উপস্থিত জানুয়ারির ১০। একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বরের পর এই তারিখটি বাঙালির কাছে সবচেয়ে আরাধ্য। পাকিস্তানের কারাগার থেকে মুক্ত হয়ে সব দ্বিধা-দ্বন্ধের অবসান ঘটিয়ে ’৭২-এর এদিনে ঢাকায় ফিরে এসেছিলেন বঙ্গবন্ধু। মুক্ত ঢাকার তেজগাঁও বিমানবন্দরে মুক্ত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে অবতরণ করেছিল ব্রিটিশ রয়্যাল এয়ার ফোর্সের বিমানটি আর এর মাধ্যমেই পূর্ণতা পেয়েছিল বাঙালির মুক্তিযুদ্ধ।

০২:৩২ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০২০ শুক্রবার

আমি সব ভুলে যাই, তাও ভুলি না ছাত্রলীগের বোল!

আমি সব ভুলে যাই, তাও ভুলি না ছাত্রলীগের বোল!

অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল) :বেয়াই, এবার আপনাদের এলাকায় একজন অ্যাডভোকেটকে নমিনেশন দেয়া হচ্ছে। ছাত্রলীগের সভাপতি ছিল। অসম্ভব ব্রিলিয়ান্ট। ভবিষ্যতে অনেক উন্নতি করবে’, সত্তরের নির্বাচনের আগে আগে শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আব্দুল আলীম চৌধুরীকে কথাগুলো বলেছিলেন শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম। সেদিনের সেই তরুণ অ্যাডভোকেটের সামনে দু’দিন আগে তার বঙ্গভবনের অফিস কক্ষে বসে মনে পড়ছিল শহীদজায়া শ্যামলি নাসরিন চৌধুরীর মুখে শোনা সেকথা। সেদিনের সেই তরুণ, সদ্য সাবেক ছাত্রনেতা আজকের বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি।

০২:০৯ পিএম, ৪ জানুয়ারি ২০২০ শনিবার

বড়দিনে একটুখানি প্রত্যাশা :অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

বড়দিনে একটুখানি প্রত্যাশা :অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল):লেখাপড়ায় আমার হাতেখড়ি ১৯৭৬ সালে বনানীতে, রোজী অ্যান সেন্টার নামের একটা কিন্ডারগার্টেনে। আজকের বনানী থানাটা তখন ছিল বনানী পুলিশ ফাঁড়ি। বনানীর ওই রাস্তায়ই থানার কয়েকটা বাড়ি, আগে ছোট একটা একতলা বাসায় ছিল ওই রোজী অ্যান সেন্টার। মিস্টার নেলসন বলে একজন খ্রিস্টান ভদ্রলোক স্কুলটা চালাতেন। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী মিসেস রোজী আর ছেলে-মেয়েরা। এই মুহূর্তে রিকিদা, ডরোথি দি আর ক্যান্ডির নাম মনে করতে পারছি। স্কুলটা এখন আর নেই। নেই একতলা সেই ছোট বাড়িটাও। সেখানে এখন বিশাল মাল্টিস্টোরিড অ্যাপার্টমেন্ট। মিস্টার নেলসন আছেন কি না, জানি না। দীর্ঘদিন যোগাযোগ নেই। আর আমিই যখন ৫০ ছুঁইছুঁই, তাঁর না থাকাটাই হয়তো বা বাস্তবতা।

০৭:২৩ পিএম, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৯ বুধবার

বাংলাদেশ হোক জয় বাংলার : ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

বাংলাদেশ হোক জয় বাংলার : ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল)

জয় বাংলা বাঙালীর জাতীয় স্লোগান। এই স্লোগান মুখে মুক্তিযোদ্ধারা জীবন বাজি রেখে পাকিস্তানের দখলমুক্ত করেছিল বাংলাদেশকে। জয় বাংলা তাই আর দশটা স্লোগানের মতো সাধারণ কোন স্লোগান নয়।মার লেখায় আর বলায় প্রায়ই বাঙালীর ইতিহাসকে টেনে আনি। বাঙালীর যে হাজার-হাজার বছরের ইতিহাস, এমনকি চর্যাপদ থেকে শুরুটা ধরলেও ন্যূনতম যা এক হাজার বছরের, তাতে কিন্তু বাঙালীর কোন স্বাধীন রাষ্ট্র কিংবা সার্বভৌম বাঙালী শাসকের উল্লেখ নেই।

০৫:১৩ পিএম, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

সেনাকুঞ্জের টেরাকোটা ম্যুরাল : ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল

সেনাকুঞ্জের টেরাকোটা ম্যুরাল : ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল

অধ্যাপক ডাঃ মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল):একুশে নবেম্বর আমার পছন্দের একটি তারিখ। ক্যালেন্ডারের পাতা উল্টিয়ে অক্টোবর যখন নবেম্বরে, তখন থেকেই হৃদয়ে এক অদ্ভুত স্পন্দন অনুভব করি। প্রহর গুনতে থাকি একুশ নবেম্বরের পরন্ত দুপুরে সেনাকুঞ্জে সশস্ত্রবাহিনী দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য একাত্তরের এই দিনেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ একটি নতুন ধাপে প্রবেশ করে। কারণ এ দিনই আমাদের সশস্ত্র বাহিনী দখলদার পাকিস্তান বাহিনীর বিরুদ্ধে সম্মিলিত আক্রমণের সূচনা করে।

 

০৯:৫০ পিএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

জয়ের প্রত্যাশা ও আমার দৃঢ় বিশ্বাস : ডা. নুজহাত চৌধুরী

জয়ের প্রত্যাশা ও আমার দৃঢ় বিশ্বাস : ডা. নুজহাত চৌধুরী

ডা. নুজহাত চৌধুরী :হৃদয়ের সবটুকু আন্তরিকতা ও সততা দিয়ে আমি তরুণ প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলি। মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ এ বাংলায় প্রতিষ্ঠার কাজটি এখনো অসমাপ্ত এবং সেই যুদ্ধ এখনো চলছে বলে আমি মনে করি। সেই যুদ্ধের অংশ মনে করেই তরুণদের কাছে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলি এবং সে কাজটি আমি তীব্র আবেগ নিয়ে করি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, শুধু ইতিহাসের পরিসংখ্যান নয়, মুক্তিযুদ্ধের শোকগাথা যদি প্রোথিত করে দিতে পারি তরুণদের হৃদয়ে, তবে তারা প্রগাঢ়ভাবে দেশপ্রেমিক হবে, কখনো এ দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করবে না, কখনো দেশের সঙ্গে বেইমানি করবে না, দেশের স্বার্থবিরোধী কাজ করবে না, কখনো রাজাকারদের সঙ্গে হাত মেলাবে না।

০৭:৪৪ পিএম, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

শহীদ বুদ্বিজীবী দিবসের উপলব্ধি

শহীদ বুদ্বিজীবী দিবসের উপলব্ধি

অধ্যাপক ডা.মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল:ডিসেম্বরের ষোল- বাঙালির ইতিহাসে সবচেয়ে গর্বের দিন, আর সেই সাথে আনন্দেরও। কিন্তু ষোল’র আনন্দ ম্লান হয়ে যায় চৌদ্দ’য় এসে। শোকের আবহে বাঙালি অবগাহন করে তার সবচেয়ে বড় বিজয়টিকে প্রতিটি বছর। একাত্তরের ন’টি মাসই গোটা বাংলাদেশ ছিল বিশাল এক বধ্যভূমি।

০২:০২ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ শনিবার

এক পূর্ণতার আকাঙ্ক্ষা ভরা প্রত্যাবর্তন

এক পূর্ণতার আকাঙ্ক্ষা ভরা প্রত্যাবর্তন

১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর প্রথম যে আকাঙ্ক্ষাটি বাঙালি জাতির মনে জেগে উঠেছিল তা হচ্ছে প্রিয় নেতাকে ফিরে পাওয়ার আকাঙ্ক্ষা। তখনও চারদিকে লাশ, কান্না আর স্বজনের খোঁজে হাহাকার। জীবন পুরো মাত্রায় জেগে উঠার সব প্রচেষ্টা শুরু হয়নি। সাঁঝবাতি জ্বলে উঠেনি সব বাড়িতে। বুলেট বিদ্ধ ভাতের হাঁড়ি আর পুড়ে যাওয়া বসতির দিকে বোবা বিস্ময়ে তাকিয়ে থাকার প্রহর তখনো শেষ হয়নি।

১০:৪৯ পিএম, ৯ জানুয়ারি ২০১৯ বুধবার

একজন অধ্যাপক সাহেবের রাজনৈতিক ও নৈতিক স্খলন

একজন অধ্যাপক সাহেবের রাজনৈতিক ও নৈতিক স্খলন

একজন অধ্যাপক আবু সাঈয়িদ যিনি সারা জীবন বঙ্গবন্ধুর কথা বলেছেন।বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একের পর এক অনেক বই তিনি লিখেছেন।স্কুল জীবন থেকে তার লেখা বই আমি নিজেও পড়েছি এবং উজ্জীবিত হয়েছি বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসতে শিখেছি। আমার মতো এই বাংলাদেশে অনেক মানুষই তার লেখা বই পড়ে উজ্জীবিত হয়েছেন এবং বঙ্গবন্ধু`কে ভালোবাসতে লিখেছেন।

১২:৩১ এএম, ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ সোমবার

প্রিয়বাংলার পথমেলায় সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের বাঁধ ভাঙা উচ্ছাস!

প্রিয়বাংলার পথমেলায় সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্যের বাঁধ ভাঙা উচ্ছাস!

বর্ণাঢ্য আয়োজন আর হাজারো মানুষের বাঁধ ভাঙা আনন্দ-উচ্ছাসের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার আর্লিটনে ১৩ সেপ্টেম্বর শনিবার উদযাপিত হয় এক ঝাঁক মেধাবী তরুণদের সংগঠন `প্রিয়বাংলা`র আয়োজনে তৃতীয় বারের মত ঝমকালো পথমেলা। সেই সাথে শেষ হল যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বৈচিত্র্যময় সাংস্কৃতিক মিলন মেলার জন্য হাজারো মানুষের বছরব্যাপী প্রতীক্ষা। 

০৩:৩৪ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ শনিবার

কিছু কথা না বললেই নয়...(১০)
কবি,লেখক ও সাংবাদিকঃআব্দুস সাত্তার এর-

কিছু কথা না বললেই নয়...(১০)

অনেক পরিকল্পনা করে এক সপ্তাহের জন্য ক্যালিফোর্নিয়া আসা। এথম কাজটি ছিল আমার গবেষণার কিছু কাগজ পত্র ইউনিভার্সিটিতে জমা দেওয়া। দ্বিতীয় কাজ ঘুরে ঘুরে ক্যালিফোর্নিয়া দেখা। এরপর লস এঞ্জেলেসের ফোবানা ২০১৪ এ অংশ গ্রহণ।

০৯:২২ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ বৃহস্পতিবার

`শুনেই মনে হতে পারে এ আবার নতুন কী ?`
পল্লব মাহমুদ এর কলাম-

`শুনেই মনে হতে পারে এ আবার নতুন কী ?`

শান্তিনিকেতন। শুনেই মনে হতে পারে এ আবার নতুন কী ? কতবারই তো গেছি। ...তারপরও বলুন কখনও কি পুরনো হয়েছে এই চিরন্তন ভালোলাগার জায়গাটি ? নির্জন প্রকৃতি, মাটি, লাল মাটির রাস্তা, বাউল গান, খোয়াই বন, আর কিছুটা এগুলেই কোপাই নদী সবমিলিয়ে একেবারে অন্যরকম। এক কথায় বলা চলে শান্তির স্বর্গ শান্তিনিকেতন।প্রকৃতির আদিম সৌন্দর্য

০৫:১০ এএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৪ বৃহস্পতিবার

`বৃটেনের কার্ডিফে ওয়েলস আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শোক দিবস পালিত`

`বৃটেনের কার্ডিফে ওয়েলস আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শোক দিবস পালিত`

বৃটেনের ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরের বাংলাদেশ সেন্টারে গত ১৯শে আগষ্ট যুক্তরাজ্যের আওয়ামীলীগের ওয়েলস শাখার উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদত বার্ষিকী জাতীয় শোক দিবস উপলড়্গে এক আলোচনা সভা ও দোয়ার মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

০৬:০৮ পিএম, ২২ আগস্ট ২০১৪ শুক্রবার

`শামীম আইভী বিতন্ডা আমাদের মিডিয়া ও  অসহায় আইন`
কয়েছ আহমদ বকুল এর কলাম-

`শামীম আইভী বিতন্ডা আমাদের মিডিয়া ও অসহায় আইন`

একটি হত্যাকান্ড হয়ে গেলো, সাত জন মানুষ কে দিনে দুপুরে উঠিয়ে নিয়ে গেলো আইন শৃংখলা বাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের সদস্যরা  অতঃপর মর্মান্তিক হত্যাযজ্ঞের শিকার হলো তাঁরা। কি করলাম আমরা, মানুষ হিসাবে আসলে কি করা উচিৎ ছিলো আমাদের? টিভি তে নিউজ দেখলাম একটু আহ ইস করলাম এবং আবার নতুন করে নতুন

১১:১১ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০১৪ বৃহস্পতিবার

সম্প্রচার নীতিমালঃ আদৌ কি প্রয়োজন ছিলো!
কয়েছ আহমদ বকুল এর কলাম-

সম্প্রচার নীতিমালঃ আদৌ কি প্রয়োজন ছিলো!

সম্প্রচার নীতিমালা, সরকার একটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে। অন্য ভাবে বললে বলতে হয় সরকারের কোন সিদ্ধান্ত কি বিতর্ক মুক্ত হয়? অন্তত আমাদের এখানে হয়না।
সাধু অসাধু যে সিদ্ধান্ত বা নীতিমালা সরকার গ্রহণ করতে যায় সমান ভাবে পক্ষে বিপক্ষে তা নিয়ে আলোচনা হয়,

১০:৪৬ এএম, ৮ আগস্ট ২০১৪ শুক্রবার

`অরণ্যে রোদন অথবা সমকালীন বিলাপ`
কয়েছ আহমদ বকুল এর কলাম-

`অরণ্যে রোদন অথবা সমকালীন বিলাপ`

শিরোনামটি ধার করা। সুলেখক, প্রণম্য আনিসুল হক অরণ্য রোদন` নামে একটি লেখা লেখেন প্রথম আলোতে। আজ লেখায় তিনি কিছুটা আলোচিত হবেন সুতারাং শিরোনামের একাংশ জুড়ে জড়িয়ে দিলাম তাঁরই শিরোনাম।

০৫:২৫ পিএম, ২৩ জুলাই ২০১৪ বুধবার

`কেবল ব্যক্তিস্বার্থই ধ্বংস করছে একটি বৃহত্তম রাজনৈতিক দলকে`
কলাম-

`কেবল ব্যক্তিস্বার্থই ধ্বংস করছে একটি বৃহত্তম রাজনৈতিক দলকে`

হুট করেই একেবারে ধ্বংসের দারপ্রান্তে এসে দাঁড়িয়েছে দেশের অন্যতম বৃহত্তম রাজনৈতিক সংঘটন বি এন পি। আদর্শগত কারণে বি এন পি হয়তোবা অনেকের প্রিয় রাজনৈতিক দল না হতে পারে, বি এন পির অনেক সিদ্ধান্ত বা কার্যক্রম অজনপ্রিয় অথবা কঠোর ভাবে সমালোচিত হতে পারে কিন্তু দলটি এভাবে নিশ্চিহ্ণ হয়ে যাক এমন কামনা

০১:৩৬ এএম, ২০ জুলাই ২০১৪ রোববার

`শব্দের বৃষ্টি`
ফেরদৌস হাসান খান এর কবিতা-

`শব্দের বৃষ্টি`

মানুষ কে শুধু মানুষ ভাবা কি খুব কঠিন?
কবিতা হয়তো তুমি বলবে তুমি ওদের দলে নও
আমার শব্দের আজকাল খুবই ব্যাস্ত
কেবল ছুটছে আর ছুটছে, জীবনের প্রয়োজনে,
জীবিকার প্রয়োজনে।

১১:৪২ পিএম, ১৭ জুলাই ২০১৪ বৃহস্পতিবার

`দুই জীবন ; বস্তুবাস্তবতা, ভাববাস্তবতা`
মুহাম্মদ ইউসুফ এর-

`দুই জীবন ; বস্তুবাস্তবতা, ভাববাস্তবতা`

একজন লেখক, দার্শনিক, কবি বা শিল্পী শেষ পর্যন্ত কোথায় বাস করবেন ? নিজের অন্তরজগতে, অন্তর্বাস ? কবি’র নির্জনতাকে কি একাকীত্বের স্বেচ্ছানির্বাসনে ফেলা হবে ? আত্মভুবনে বসবাস কি আত্মমুখিতা ? জীবনের ছুটাছুটি, রুটিরুজির শ্রম-গ্লানি অন্তরের শূন্যতাকে পূর্ণ করে না । পূর্ণতা, স্থিতি চায় অন্তর-আত্মা-মন । চায় মিলন ও মুক্তি । এ মিলন, স্থিতি ও পূর্ণতার আকাঙ্ক্ষা তীব্র কিন্তু কেন

০৫:০৭ এএম, ১২ জুলাই ২০১৪ শনিবার

কিছু কথা না বললেই নয়...(০৭)
কবি,লেখক ও সাংবাদিকঃআব্দুস সাত্তার এর-

কিছু কথা না বললেই নয়...(০৭)

আমি আজ যার কথা লিখতে যাচ্ছি তিনি নর্থ আমেরিকার অতিপরিচিত মুখ। তিনি হলেন জনাব ডঃ গোলাম আক্তার। যিনি ১৯৬৪ সালে বুয়েট থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং উপর ব্যাচেলার ডিগ্রি নিয়ে আমেরিকা চলে আসেন পিএইচডি করার জন্য। ১৯৮৪ সালে ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড ডিপার্টমেন্ট অব সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে পিএইচডি করেন।জনাব গোলাম

১০:০৯ পিএম, ২ জুলাই ২০১৪ বুধবার

কিছু কথা না বললেই নয়...(০৬)
কবি,লেখক ও সাংবাদিকঃআব্দুস সাত্তার এর-

কিছু কথা না বললেই নয়...(০৬)

আমি আজ যার কথা লিখতে যাচ্ছি তিনি আপনাদের সবার প্রিয় খ্যাতিমান  শিশু সাহিত্যিক লুৎফর রহমান রিটন। মূলত ছড়াকার হিসাবেই তিনি সুপরিচিত। তিনি পরিবারসহ প্রবাসে( কানাডা) থাকেন। অনেক বছর যাবত আমি উনার এফবি বন্ধু হিসাবে আছি। বাস্তবে কোনদিন দেখা হয়নি।

০৯:২২ এএম, ২৫ জুন ২০১৪ বুধবার

`আমার জীবন কাহিনী কি করে শোনাবো তোমায়`
এলিজা আজাদ এর কবিতা-

`আমার জীবন কাহিনী কি করে শোনাবো তোমায়`

ছিলো কৃষ্ণচূড়া- ছি্লো আলো
ছিলে আমার পাশে তুমি
আমরা ছিলাম নোম্যানস্‌ ল্যান্ডের বাসিন্দা____
তুমি কবিতা লিখতে ভালোবাসতে
আমি ছিলাম তোমার কবিতা লেখার প্রেরণা
তুমি ছবি আঁকতেও ভালোবাসতে
আমি ছিলাম তোমার চিত্রকল্পের মানস প্রতিমা

০৭:২০ এএম, ২১ জুন ২০১৪ শনিবার

`বায়বীয় প্রেম`
এ.কে. দুলাল এর কবিতা-

`বায়বীয় প্রেম`

কোনদিন দ্যাখা হয় নাকো ; সুহাসিনী ! তুমি কতদূর থাকো ?
বাতাসের সাথে বাতাসের , বাষ্পের সাথে বাষ্পের
হয়তো সহসা সংঘর্ষও হয়। বায়বীয় প্রেম আমাদের ; উদ্ভ্রান্ত মনের,
দিগন্তে মিলিয়ে যায় – কোনদিন বাঁধে নাকো জট,

যদিও রয়েছি আমরা একই দিগন্তের পট ।

১২:১১ এএম, ২০ জুন ২০১৪ শুক্রবার

`অগূঢ়ে আক্ষেপ`
দোলন মাহমুদ এর কবিতা-

`অগূঢ়ে আক্ষেপ`

অবেলায় মন তুমি
খোঁজ কেন সুখ,
সুখ সে তো ধরা দেবে
শেষ হলে দুখ।

০৮:২৩ এএম, ৭ জুন ২০১৪ শনিবার

সর্বোচ্চ পুরষ্কার অ্যাওয়ার্ডে `পিঁপড়াবিদ্যা`
সাংহাই ফিল্ম ফেস্টিভালের

সর্বোচ্চ পুরষ্কার অ্যাওয়ার্ডে `পিঁপড়াবিদ্যা`

সাংহাই ফিল্ম ফেস্টিভালের সর্বোচ্চ পুরষ্কার গোল্ডেন গবলেট অ্যাওয়ার্ড প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচিত হয়েছে মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর পিঁপড়াবিদ্যা (Ant Story) । সাধারণত ১৫ থেকে ১৭টি ছবি প্রতিযোগিতা বিভাগে নির্বাচিত হয়। এ বছর ১০৯৯ টি ছবি থেকে ১১টি ছবিকে প্রতিযোগিতা বিভাগেরে জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। যার মধ্যে বাংলাদেশের পিঁপড়াবিদ্যা

১২:৫৮ এএম, ৩ জুন ২০১৪ মঙ্গলবার

আবার সংগ্রাম শুরু করবে : সন্তু লারমা
পিসিপির ২৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে

আবার সংগ্রাম শুরু করবে : সন্তু লারমা

 যে ভাবে সংগ্রাম করে পার্বত্য শান্তি চুক্তি সম্পাদনে সরকারকে বাধ্য করা হয়েছিলো চুক্তি বাস্তবায়নের প্রয়োজনে পাহাড়ের জুম্ম জনগণ আবারে সেভাবে সংগ্রাম শুরু করবে বলে সরকারকে হুঁশিয়ারী দিয়েছেন পার্বত্য চট্রগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমাওরফে(সন্তু লারমা)| তিনি বলেন পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে পাহাড়ের জনগণকে দমিয়ে রাখা যাবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন।

০১:৩০ এএম, ২৩ মে ২০১৪ শুক্রবার

`জ্যোৎস্নারাতে মৃত্যুর অপেক্ষা`
এম আর ফারজানা`র কবিতা-

`জ্যোৎস্নারাতে মৃত্যুর অপেক্ষা`

আমি এ ভূবন ছেড়ে
যাব খুব তাড়াতাড়ি ঐ ঊর্ধগগনে।
তাই শুনে বন্ধু আমার
খুলে তার বন্ধ মনের দ্বার
দেখতে এসেছে আমায় সংগোপনে।

 

০৯:১৯ এএম, ১৫ মে ২০১৪ বৃহস্পতিবার

পাঠক কলাম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত