ঢাকা, ২৩ এপ্রিল, ২০২১ || ১০ বৈশাখ ১৪২৮
Breaking:
পাবনা শহরের জুবিলী ট্যাংক পাড়ার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা, জেলা ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এ্যাড.আসিফ শামস রন্জন ভাইয়ের শ্বশুর এবং যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুসলিমা শামস বনী ভাবীর বাবা আবুল হোসেন খান মোহন সবাইকে ছেড়ে চলে গেলেন না ফেরার দেশে। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) আগামীকাল বাদ জুমা চাপা মসজিদে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে নিবেদন মোহন সাহেব কে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন। আমিন।। উল্লেখ্য,মোহন সাহেব সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এ্যাড.শামসুল হক টুকু এমপি’র বিয়াই।      ভন্ডদের পক্ষে বিবৃতিদাতারাও ভন্ডদের পর্যায়েই পড়ে : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  মেট্রোরেল নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ৬১.৪৯ শতাংশ : ওবায়দুল কাদের        কার্বন নিঃসরণ হ্রাসে উন্নত দেশগুলোর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান     
২১৬৬

কিরণ ব্যাপারীর কাছে জিম্মি বেড়ার সাধারণ মানুষ

মুক্তআলো২৪.কম

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২১  

কিরণ ব্যাপারীর  কাছে জিম্মি বেড়ার সাধারণ মানুষ

কিরণ ব্যাপারীর কাছে জিম্মি বেড়ার সাধারণ মানুষ


কিরণ ব্যাপারীর  কাছে জিম্মি বেড়ার সাধারণ মানুষ।বেড়া পৌরসভার মুজিব বাঁধ সংলগ্ন পায়না থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত চাঁদাবাজী, মাদক, জুয়া, অবৈধ মাটি ও বালি উত্তোলন সহ দীর্ঘদিন নানারকম অসামাজিক কাজ চালিয়ে যাচ্ছে একটি চক্র।

সরেজমিনে তদন্ত করে দেখা যায়,যাদের ছত্রছায়ায় এই অবৈধ কাজ গুলো ঘটে চলেছে, সেই সিন্ডিকেট দলের নেতা মানু মান্নান ব্যাপারী ও তার ভাতিজা কিরণ ব্যাপারী । মূলত কিরণ ব্যাপারী তার চাচা  মানু মান্নান ব্যাপারী যিনি বেড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি , তার ছত্রছায়ায় এসব অবৈধ কাজের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

এখানে বলা বাহুল্য যে তিনি একজন ট্রাকের হেলপার ছিলেন, গত ১০ বছরে কিরণ ব্যাপারী প্রায় ১০০ কোটি টাকার মালিক হয়েছেন।
নামে-বেনামে দশটার মত ট্রাক এর মালিক হয়েছেন, ট্রাক নাম্বার গুলো যথাক্রমে, ঢাকা মেট্রো ট:২২৯৭৩৩,ঢাকা মেট্রো ট:২২০২৪৮,ঢাকা মেট্রো ট:২২৫৯৪৪

তাছাড়াও এই কিরণ ব্যাপারী বিপুল পরিমাণ সম্পত্তির মালিক হয়েছেন নামে-বেনামে এবং অবৈধ বালু উত্তোলনের জন্য দুইটি বলগেট এর মালিক ও তিনি হয়েছেন। যা দিয়ে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করেন। এবং প্রশাসনের নাকের ডগার উপর দিয়ে কোটি কোটি টাকার অবৈধ বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন।
শুধু তাই নয়,বেড়া পৌরসভার মুজিব বাঁধ সংলগ্ন পায়না থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত চাঁদাবাজী, মাদক, জুয়া এবং ক্ষুদ্র পরিসরে পতিতালয় চালায় বলে জানা যায়।

অবৈধ মাদকের ছোবলে, বেড়ার তরুণ সমাজ যেমন বিপথগামী হচ্ছে ঠিক তেমনি এ জুয়ার আসর মানুষকে সর্বশান্ত করে দিচ্ছেন। সেইসঙ্গে তার পতিতালয় যুবসমাজকে অবৈধ অসামাজিক কাজে উদ্বুদ্ধ করছেন।

এই কিরণ ব্যাপারী এতটাই ক্ষমতাধর হয়েছেন যে, তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ করা হলেও,তিনি ঠিকই জামিন নিয়ে বের হয়ে এলাকায় আগের মতো কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

এক্ষেত্রে উল্লেখ করতে চাই যে, গত ১২ ই মার্চ রবিবার দুপুরে পাবনা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে, পাবনার বেড়ায় অসামাজিক কাজ বন্ধ ও উন্নয়কাজে বাধাদানকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন এ দাবি জানান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারি অধ্যাপক ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপির ছোট ছেলে ড. এস এম নাসিফ শামস।

তিনি লিখিত বক্তব্যে জানান,শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের জন্য তার মা বেগম লুৎফুন্নেছার নামে একটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, একটি টেকনিক্যাল কলেজ ও একটি সোলার পাওয়ার প্লান্ট স্থাপনে চেষ্টা করছেন ড. নাসিফ শামস। 

তিনি অভিযোগ করেন, এলাকার ওই সিন্ডকেট দলের নেতা মানু মান্নান ব্যাপারী ও তার ভাতিজা কিরণ ব্যাপারী বিভিন্ন সময়ে চাঁদা দাবি করে এসব উন্নয়নকাজে বাধার সৃষ্টি করছেন।এমন পরিস্থিতিতে গণমাধ্যমকর্মীদের মাধ্যমে এ সব চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানান তিনি।
এর পর গণমাধ্যমে মোঃ কিরন ব্যাপারী বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হলে,বেড়া মডেল থানার মামলা নং০৮,তাং১২/০৩/২১খ্রি.এর (চাঁদা দাবী,ভাংচুর,চুরি,ও মারপিটের অপরাধ) আসামী মোঃ কিরন ব্যাপারী কে গ্রেফতারপূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করেন বেড়া মডেল থানা পুলিশ।

কিন্তু কিরন ব্যাপারী  এক অদৃশ্য শক্তির অন্তরালে জামিনে বের হয়ে আবার এলাকায় সন্ত্রাসের ও চাঁদাবাজির রাজত্ব  কায়েম করেছেন। কিরন ব্যাপারী   এতটাই ক্ষমতাধর বলে নিজেকে দাবি করছেন এবং প্রকাশ্যে বলে বেড়াচ্ছেন, কোন প্রশাসন নাকি তাকে আটকে রাখতে পারবে না।এদিকে বেড়া থানা সঙ্গে তার সম্পর্ক দহরম মহরম আছে বলে এলাকার সাধারন জনগন  জানান।

এমত অবস্থায় প্রশাসনের সর্বস্তরের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি অসহায় মানুষকে এই মানুষরূপী দানবের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য, অনতিবিলম্বে তাকে আইনের আওতায় এনে  অসহায় মানুষের শান্তির জন্য এবং উন্নয়নের অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে ,এই মানুষরূপী সন্ত্রাসীকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানায় বেড়ার নির্যাতিত সাধারণ মানুষ।


 

মুক্তআলো২৪.কম/ঢাকা, ৩০ মার্চ, ২০২১

আরও পড়ুন
পাবনার খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত