ঢাকা, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ || ১১ আশ্বিন ১৪২৭
Breaking:
সিএমএইচ-এ নিবিড় পরিচর্যায় চিকিৎসাধীন এটর্নি জেনারেল     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সমান প্রাপ্তি নিশ্চিতে প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ        ২৬ সেপ্টেম্বরের অপূর্ণ প্রত্যাশা:অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব     
৩১১

দেশি-বিদেশি লিভার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে বঙ্গবন্ধু লিভারকন ২০২০

মুক্তআলো২৪.কম

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

দেশি-বিদেশি লিভার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু লিভারকন ২০২০`

দেশি-বিদেশি লিভার বিশেষজ্ঞদের নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু লিভারকন ২০২০`


আগামী ২৪-২৫ জানুয়ারি কুমিল্লার কোটবাড়ীতে অনুষ্ঠিত হবে অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ বাংলাদেশের ১৬তম বার্ষিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলন ‘বঙ্গবন্ধু লিভারকন ২০২০’। বাংলাদেশের লিভার বিশেষজ্ঞদের জাতীয় এই সংগঠন আয়োজিত এই সম্মেলনটির আয়োজন করা হবে বাংলাদেশ একাডেমি ফর রুরাল ডেভলপমেন্টে (বার্ড)।

সংগঠনটি জানিয়েছে, বাংলাদেশে লিভার রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রায় তিন কোটি। এর প্রধান কারণ হেপাটাইটিস বি ভাইরাস। পাশাপাশি ফ্যাটি লিভার আর হেপাটাইটিস সি ভাইরাসও এদেশে লিভারের জটিল রোগগুলোর অন্যতম কারণ।


বাংলাদেশের লিভার বিশেষজ্ঞরা এদেশে লিভার রোগের আধুনিক সমস্ত চিকিৎসা পদ্ধতি প্রবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন। এদেশে লিভার ফেইলিউরের চিকিৎসায় অটোলোগাস হেমোপয়েটিক স্টেম সেল ট্রান্সপ্লান্টেশন ও প্লাজমা এক্সচেঞ্জ প্রবর্তনের কৃতিত্ব তাদের। বিশেষ করে অটোলোগাস হেমোপয়েটিক স্টেম সেল ট্রান্সপ্লান্টেশনে তাদের অভিজ্ঞতা এই অঞ্চলে সবচেয়ে বেশী। পাশাপাশি লিভার ক্যান্সারের সর্বাধুনিক চিকিৎসা পদ্ধতি ট্রান্সআর্টারিয়াল কেমোএম্বোলাইজেশনও আমাদের লিভার বিশেষজ্ঞরা এদেশে নিয়মিতভাবে সাফল্যের সাথে করে আসছেন।


বাংলাদেশের লিভার বিশেষজ্ঞদের সবচাইতে বড় অর্জনের নাম ন্যাসভ্যাক। অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ বাংলাদেশের সেক্রেটারি জেনারেল এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের লিভার বিভাগের বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল) ও বর্তমানে জাপানের এহিমে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রবাসী ডা. শেখ মোহাম্মদ ফজলে আকবরের গবেষণালব্ধ এই ওষুধটি এরই মধ্যে কিউবা, বেলারুশ, ইকুয়েডর, নিকারগুয়া ও এঙ্গোলায় রেজিস্ট্রেশন পেয়েছে। পাশাপাশি বর্তমানে বাংলাদেশী লিভার বিশেষজ্ঞদের সহযোগিতায় জাপানেও ওষুধটির ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে।


ন্যাসভ্যাকের গবেষকদ্বয় তাদের গবেষণার জন্য একাধিক আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছেন। যার মধ্যে আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ এবং ইউরোএশিয়ান গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিক্যাল এসোসিয়েশনের নাম অন্যতম। তবে ন্যাসভ্যাকের সবচাইতে বড় অর্জনটি হল বাংলাদেশের ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর এদেশে ডেভলপ করা ‘প্রথম নভেল মলিকিউল’ হিসেবে ন্যাসভ্যাকের রেসিপি অনুমোদন করেছে।


বাংলাদেশের লিভার গবেষকদের গবেষণা ল্যানসেট-সহ বিভিন্ন দেশি-বিদেশি বৈজ্ঞানিক জার্নালে নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। পাশপাশি আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ, ইউরোপিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ, এশিয়ান প্যাসিফিক অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার এবং ইউরোএশিয়ান গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের মত আন্তর্জাতিক লিভার সংগঠনগুলোর বৈজ্ঞানিক সম্মেলনেও তারা নিয়মিতভাবে তাদের গবেষণার ফলাফল উপস্থাপন করে আসছেন।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখে জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেজ বাংলাদেশ তাদের ১৬তম বার্ষিক আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলনটি জাতির পিতাকে উৎসর্গ করেছে। সারা দেশ থেকে সাড়ে চারশ’র বেশি লিভার, মেডিসিন, সার্জারি ও অন্যান্য বিশেষজ্ঞ ‘বঙ্গবন্ধু লিভারকন ২০২০’-এ অংশ নিচ্ছেন। এই সম্মেলন দেশি-বিদেশি লিভার বিশেষজ্ঞদের মেলবন্ধন হিসেবে কাজ করবে এবং আগামীতে এদেশের লিভার রোগের চিকিৎসার বিকাশ ও আধুনিকায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

মুক্তআলো২৪.কম
 

 

আরও পড়ুন
শিক্ষা ও গবেষণা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত