ঢাকা, ২২ নভেম্বর, ২০১৯ || ৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
Breaking:
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
৭৪৯

মেয়েরা বেশি আসক্ত সেক্সটিংয়ে এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মিথ্যার আশ্রয় নেন

অনলাইন

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৪   আপডেট: ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৪

`সেক্সটিং` ব্যাপক বিস্তার লাভ করেছে প্রযুক্তির যুগে মোবাইলের কল্যাণে। নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে, যৌনতাপূর্ণ মেসেজ আদান-প্রদানের এই কাজে নারীরা বেশি এগিয়ে এবং নারীরা এ ক্ষেত্রে মিথ্যার আশ্রয় নেন। গবেষণা প্রতিবেদনটি `কম্পিউটারস ইন হিউম্যান বিহেভিয়ার` জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।
ইন্ডিয়ানা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর মিশেল ড্রোইন জানান, সেক্সটিংয়ের মাধ্যমে সবাই তার পার্টনারকে খুশি করতে চান। এ কাজে নারীদের ৪৫ শতাংশ আসক্ত যেখানে পুরুষদের ২৪ শতাংশ আসক্ত রয়েছেন। আর সেক্সটিংয়ের মাধ্যমে নারীরা চরম যৌনসুখ উপভোগের অভিনয় বেশি করে থাকেন বলে জানান প্রফেসর।
গবেষণায় অংশগ্রহণকারীরা এই মিথ্যার আশ্রয় নেওয়ার পেছনে কয়েকটি কারণ দেখান। অপরজনকে খুশি করতে এবং তাদের কল্পনায় যৌনসুখ আনতেই এই অভিনয় করেন তারা।
এ গবেষণায় ১৫৫ জন কলেজ শিক্ষার্থীকে বেছে নেওয়া হয় যাদের ৬২ জন ছেলে এবং ৯৩ জন নারী ছিলেন। সেক্সটিং চালাচালির পর তারা জানান, তাদের অনেকেই এ কাজের সময় `মুড` ফিরে পেতে বিছানায় শুয়েছিলেন। অন্য কয়েকজন জানান, তারা মিথ্যা টেক্স করতে দেখতে চেয়েছিলেন তাদের পার্টনাররা কী করেন?
গবেষণায় আরো বলা হয়, কিছু মেয়ে একঘেয়েমি থেকে বাঁচতে মিথ্যার আশ্রয় নেন।
ড্রোইন জানান, তবে মুখোমুখি যৌনতাপূর্ণ আলাপচারিতার ক্ষেত্রে তারা সে উত্তেজনা পান, তার চেয়ে বেশ কম আনন্দ পান সেক্সটিংয়ের ক্ষেত্রে। তবে সেক্সটিংয়ের সময় মিথ্যা বলাতে সম্পর্কের অবনতি ঘটতে পারে বলে জানান তিনি। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

লাইফস্টাইল বিভাগের সর্বাধিক পঠিত