ঢাকা, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ || ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
Breaking:
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
১৯৪১

ঢাকা বিভাগ এসোসিয়েশন ফ্রান্স এর মিলন মেলা

ফ্রান্সের বিশেষ সংবাদদাতা `দোলন মাহমুদ`

প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০১৪   আপডেট: ৮ জুলাই ২০১৪

ঢাকা বিভাগ এসোসিয়েশন ফ্রান্স এর মিলন মেলা

ঢাকা বিভাগ এসোসিয়েশন ফ্রান্স এর মিলন মেলা

গতকাল রোববার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের পার্ক দ্য লা ভিলেতে ‘ঢাকা বিভাগ এসোসিয়েশন, ফ্রান্স‘ আয়োজিত "মিলন মেলা ও মধ্যাহ্ন ভোজ" অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হল।উক্ত অনুষ্ঠানে ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম উপস্থিত হয়ে বলেন, ঢাকা বিভাগ আয়োজিত এ মিলন মেলায় বাংলাদেশের সকল জেলার অধিবাসীদের উপস্থিতি আমাদের জাতীয়তাবোধ ও দেশ প্রেমের কথা মনে করিয়ে দেয়। এ ধরনের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পারস্পরিক মত বিনিময়ের রাস্তা সহজ হয়। প্রবাসীদের মাঝে সৌহার্দ্য ও ঐক্য এ ধরনের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আরো দৃঢ হবে বলে মনে করেন তিনি।একটা কথা নিউজটাতে লিখতে হবে,,,তা হলঃ (আর এ অনুষ্ঠানকে সাফল্য মন্ডিত করতে - এর পর হবে ,,সার্বিক তথ্যাবধানে ছিলেন বিকশিত নারী সংঘ ফ্রান্স এর সভাপতি তৌফিকা শাহেদ এবং স্বেচ্ছা সেবক হিসেবে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন ঃ আব্দুল হাবিব, বেলায়েত (digi rafi), নাজমুল হাসান, ইউসুফ খাঁন, কামাল হোসেন, সোহাগ, বাবলু রশিদ, ফেরদৌস, আমিন, স্বপন হাওলাদার, পরশ মনি, হাসান, রিপন ও আরো অনেকে।

 

 

প্রবাসী বাংলাদেশীরা এ ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পরস্পরের আরো কাছাকাছি আসতে পারবে বলে জানিয়েছেন ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম। ঢাকা বিভাগ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের আহবায়ক শেখ মোহাম্মদ শাহজাহান সারু বলেন, প্রবাসের মাটিতে সারাদিন কর্মব্যস্ততার পর নিজেদের পরিবারের জন্যই অনেকে সময় বের করতে পারেন না। ঐতিহ্যগত ভাবেই আমরা বাঙ্গালীরা বিভিন্ন সামাজিক আচার অনুষ্ঠানে অভ্যস্ত। বিদেশের মাটিতে আমাদের সন্তানেরা প্রথাগত এসব আচার অনুষ্ঠানের সঙ্গে পরিচিত হতে পারছে না। অন্ততঃপক্ষে এক দিনের জন্য হলেও তাদের একটি মিলনসূত্রে বাধার লক্ষ্যেই এ অনুষ্ঠানের আয়োজন। এ মিলন মেলার মাধ্যমে আমাদের শিশু কিশোররা প্রবাসে অবস্থানের পরও দেশীয় আবহের স্পর্শ পাবে বলে মনে করেন তিনি। মিলন মেলার দ্বিতীয়ার্ধে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে সঙ্গীতানুষ্ঠান শুরু হয় এবং প্যারিসে অবস্থানরত স্থানীয় বাংলাদেশী শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করেন। ঢাকা বিভাগ এসেসিয়েশন ফ্রান্স আয়োজিত এ মিলন মেলায় দুই সহস্রাধীক বাংলাদেশী অংশ নেন। রৌদ্র ঝলমল দিনে প্রকৃত অর্থেই বাংলাদেশীদের মিলন মেলায় পরিণত হয় পার্ক দ্য লা ভিলেত। শিশু কিশোর ও আবাল বৃদ্ধ বণিতাদের অংশগ্রহনে মিলন মেলা প্রাঙ্গন মুখরিত ছিলো সারাদিন।

 

 

 

প্যারিস সময় রাত নয়টায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনার পর বিদায়ের বেদনায় ভারাক্রান্ত হৃদয়ে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা। মিলন মেলায় ফ্রান্সস্থ বাংলাদেশ দুতাবাসের রাষ্ট্রাচার বিভাগের প্রধান ও প্রথম সচিব সৈয়দ ওয়ালিউর রহমান, ঢাকা বিভাগ এসেসিয়েশনের সদস্য সচিব মিজানুর রহমান, লিটন খান, সাইফুল খান সহ প্যারিসের বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আর এ অনুষ্ঠানকে সাফল্য মন্ডিত করতে স্বেচ্ছা সেবক হিসেবে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন ঃ আব্দুল হাবিব, বেলায়েত (digi rafi), নাজমুল হাসান, ইউসুফ খাঁন, কামাল হোসেন, সোহাগ, বাবলু রশিদ, ফেরদৌস, আমিন, স্বপন হাওলাদার, পরশ মনি, হাসান, রিপন ও আরো অনেকে।


আরও পড়ুন
প্রবাস ভাবনা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত