ঢাকা, ০৫ জুলাই, ২০২২ || ২১ আষাঢ় ১৪২৯
Breaking:
পদ্মা সেতুতে জয়, পুতুলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সেলফি      ভারত সরকারের লাইন অফ ক্রেডিটের আওতায় রূপসা সেতুর কাজ সম্পন্ন     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  আফগানিস্তানে জরুরি ত্রাণ সামগ্রী পাঠালো বাংলাদেশ        প্রধানমন্ত্রী দেশের প্রথম ক্যাম্পাস-ভিত্তিক বিজনেস ইনকিউবেটর উদ্বোধন করবেন কাল        অধিক ফসল উৎপাদন করার ও বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর        জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী        পদ্মা সেতু বিপুল সম্ভাবনার অর্থনীতি ও অন্যান্য’-এর মোড়ক উন্মোচন     
৩৫৩২

মোদিকে টেলিফোন শেখ হাসিনার

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০১৪   আপডেট: ২০ মে ২০১৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ।ফাইল ছবি

গতকাল ভারতের ভাবী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে টেলিফোন করে নির্বাচনে জয়লাভের জন্য তাকে অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । এ সময় তিনি আশা প্রকাশ করেন, নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে দু`দেশের সম্পর্ক আরও উন্নত হবে। সে জন্য উভয় দেশ অতীতের মতো একসঙ্গে কাজ করবে। দু`দেশের সরকার দ্বিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে অতীতের মতো ভবিষ্যতেও যে কোনো সমস্যা সমাধানে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাবে। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিল বাসসকে এ কথা জানান। শেখ হাসিনা বাংলাদেশ সময় সকাল ৯টায় নরেন্দ্র মোদিকে টেলিফোন করেন। তিনি বাংলাদেশের সরকার, জনগণ, বাংলাদেশআওয়ামী লীগ এবং তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানান।টেলিফোন আলাপকালে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ সবসময় প্রতিবেশী দেশসমূহের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে আগ্রহী। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান । বাসস, পিটিআই।এর আগে গত ১৬ মে লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের ভাবী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিজেপি সভাপতি রাজনাথ সিংকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে চিঠি লেখেন। চিঠিতে নরেন্দ্র মোদিকে শেখ হাসিনা বলেন, `দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককেআরও উচ্চতায় নিয়ে যেতে তার সঙ্গে তিনি একসঙ্গে কাজ করতে চান।` চিঠিতে মোদিকে বাংলাদেশের মহান বন্ধু উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, `তিনি (মোদি) বন্ধুপ্রতিম ভারতের নেতৃত্বের ভার পাওয়ায় আমি আনন্দিত।` নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেন, `আমি আশা করি আপনি আমার দেশকে নিজের দ্বিতীয় বাড়ি (সেকেন্ড হোম) মনে করবেন এবং বিদেশ সফরের ক্ষেত্রে সবার আগে বাংলাদেশে আসবেন।`

 

 

 

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত