ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি, ২০২৩ || ১৩ মাঘ ১৪২৯
Breaking:
বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সাথে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ      আগামী সাধারণ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী      এসোসিয়েশন অব ফিজিশিয়ানস অব ইন্ডিয়ার সম্মেলনে বিশেষ আমন্ত্রিত বক্তা অধ্যাপক ডা. স্বপ্নীল      ক্ষমতার অপপ্রয়োগ যাতে না হয় ডিসিদেরকে তা নিশ্চিত করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  গুজব প্রতিরোধে ডিসিদের দিক-নির্দেশনা তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রীর        আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশে দুর্নীতি, দুঃশাসন ও অশিক্ষা থাকবে না : শিক্ষামন্ত্রী        অপশক্তিকে আগুন নিয়ে খেলতে দেয়া হবে না : ওবায়দুল কাদের        হেগে পবিত্র কুরআন অবমাননার তীব্র নিন্দা বাংলাদেশের        ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণের প্রধান হাতিয়ার ডিজিটাল সংযোগ : প্রধানমন্ত্রী     
৫৯

সারা দেশে চলছে শেখ কামাল যুব গেমস

মুক্তআলো২৪.কম

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০২৩  


বাংলাদেশ অলিম্পিক  এসোসিয়েশন (বিওএ) আয়োজিত ‘শেখ কামাল ২য় বাংলাদেশ যুব গেমস ২০২৩’র আন্ত:উপজেলা  পর্যায়ে আজ অষ্টম দিনের খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ দিন দেশের বিভিন্ন জেলায় বেশ  কিছু ইভেন্ট সম্পন্ন হয়েছে এবং আরো  কিছু  চলমান রয়েছে।

জয়পুরহাটে সিআরডি সুইমিং পুল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সাঁতার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইল তরুণ ইভেন্টে প্রথম হয়েছেন পাঁচবিবি উপজেলার সঞ্জয়। আক্কেলপুরের রাহিম দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে পাঁচবিবির তারেক প্রধান প্রথম এবং সদর উপজেলার আশিক হোসেন দ্বিতীয় হয়েছেন। ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে পাঁচবিবির যুধিষ্টির বর্মন প্রথম এবং সদরের ওয়াসিমুল বারী ইমন দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে সদরের আবু তালহা প্রথম এবং আক্কেলপুরের জেম দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে সদরের রাকিব হোসেন প্রথম এবং পাঁচবিবির দ্বিপজয় বর্মণ দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্রেষ্ট স্ট্রোকে সদরের আবু নসর প্রথম এবং পাঁচবিবির পার্থ চন্দ্র মন্ডল দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্রেষ্ট স্ট্রোকে সদরের নাহিদ প্রথম এবং আক্কেলপুরের রাহিম দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে আক্কেলপুরের আব্দুল্লাহ আল কাফি প্রথম হয়েছেন। দ্বিতীয় হয়েছেন সদর উপজেলার আব্দুল্লাহ আল সাজিদ। ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইল তরুণী ইভেন্টে আক্কেলপুরের এশা খাতুন প্রথম হয়েছেন। কালাইয়ের মুনিরা দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে পাঁচবিবির মাধবী মালো প্রথম এবং ক্ষেতলালের ইলিমা খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে পাঁচবিবির স্বরণী রানী প্রথম এবং কালাইয়ের মাছুমা খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে পাঁচবিবির বৃষ্টি প্রথম এবং আক্কেলপুরের চম্পা খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে পাঁচবিবির সাদিয়া আক্তার প্রথম হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে পাঁচবিবির মুক্তা মিনজী প্রথম এবং ক্ষেতলালের বৈশাখী খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্রেষ্ট স্ট্রোকে পাঁচবিচির সিমা উড়াও প্রথম হয়েছেন। আক্কেলপুর উপজেলার মুশফিয়া দ্বিতীয় হয়েছেন।
লালমনিরহাটে পাঁচ উপজেলার কাবাডি ইভেন্ট চলছে। কাবাডি তরুণী দলীয় ইভেন্টের ফাইনালে উঠেছে সদর ও হাতীবান্ধা উপজেলা। সদর উপজেলাকে আদুরী আক্তার এবং হাতীবান্ধা দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন নাজনীন আক্তার। তরুণ দলীয় ইভেন্টে ফাইনালে উঠেছে সদর ও পাটগ্রাম উপজেলা। সদর উপজেলাকে চাঁন মিয়া এবং পাটগ্রাম উপজেলাকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন হোসেন আলী।
আজ মাগুরায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে সাইক্লিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন ৮ তরুণ-তরুণী। তরুণ ইভেন্টে মাগুরা সদর উপজেলার ইটার হোসেন প্রথম হয়েছেন। শালিখা উপজেলার জাকারিয়া দ্বিতীয় হয়েছেন। তরুণী ইভেন্টে সদর উপজেলার ফারজানা খাতুন প্রথম হয়েছেন। শালিখা উপজেলার চৈতি বিশ্বাস দ্বিতীয় হয়েছেন। 
এদিকে, বরগুনায় আজ ৬টি উপজেলার ৬টি তরুণ ও ৬টি তরুণী দলের অংশগ্রহণে কাবাডি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রতিযোগিতার ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে। ফাইনালে বরগুনা সদর ও আমতলী উপজেলার তরুণ দল এবং বরগুনা সদর ও পাথরঘাটা উপজেলার তরুণী দল অংশ নেবে।
শেরপুরে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে ফুটবলের তরুণ বিভাগে নকলা উপজেলাকে ২-১  গোলে হারিয়ে সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তরুণী বিভাগে ঝিনাইঘাতী উপজেলাকে হারিয়ে ১-০ গোলে হারিয়ে সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ভলিবলের তরুণ বিভাগে নকলা উপজেলাকে ২-০ সেটে হারিয়ে সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তরুণী বিভাগে ঝিনাইঘাতী উপজেলাকে হারিয়ে সদর উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।
ঠাকুরগাঁয়ে শহীদ মোহাম্মদ আলী স্টেডিয়ামে উশু (সান্দা) তরুণ বিভাগে -৪৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন পীরগঞ্জের জিহাদ হোসেন। সদর উপজেলার লাবিব হায়দার দ্বিতীয় হয়েছেন। -৪৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন সদরে সাগর ইসলাম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন পীরগঞ্জর হৃদয়। -৫২ কেজি ওজন শ্রেণিতে সদরের মোস্তফা গণি প্রথম এবং পীরগঞ্জের আপন দ্বিতীয় হয়েছেন। -৫৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে সদরের রোকনুজ্জামান প্রথম এবং রাণীশংকৈল উপজেলার দিগন্ত বর্মণ অধিকারী দ্বিতীয় হয়েছেন। -৬০ কেজি ওজন শ্রেণিতে বালিয়াডাঙ্গির পল্লব চন্দ্র রায় প্রথম এবং পীরগঞ্জের শাকিল ইসলাম দ্বিতীয় হয়েছেন। তরুণ বিভাগে -৪৫ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন সদরের শিমু আক্তার। দ্বিতীয় হয়েছেন পীরগঞ্জের সুমি আক্তার। -৪৮ কেজি ওজন শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন সদরের সুমিতা রাণী। দ্বিতীয় হয়েছেন পীরগঞ্জের বিথি আক্তার। -৫৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে বালিয়াডাঙ্গির অনুপমা রায় বন্যা প্রথম এবং রাণীশংকৈলের শ্রী দিশা বর্মণ দ্বিতীয় হয়েছেন।
রাজশাহীতে তরুণ ফুটবলে বাগমারা উপজেলা চ্যাম্পিয়ন এবং দুর্গাপুর রানারআপ হয়েছে। তরুণী বিভাগে গোদাগাড়ী চ্যাম্পিয়ন এবং রানারআপ  হয়েছে পবা উপজেলা। কাবাডি তরুণ বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন গোদাগাড়ী এবং রানার্স-আপ হয়েছে পবা উপজেলা। তরুণী বিভাগে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে পুটিয়া উপজেলা। রানার্স-আপ হয়েছে পবা উপজেলা। সাঁতার তরুণ বিভাগে ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে প্রথম হয়েছেন পবার পারভেজ এবং দ্বিতীয় হয়েছেন হাবিবুর রহমান। ১০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে প্রথম পবার পারভেজ এবং চারঘাটের রোহান দ্বিতীয় হয়েছেন। ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে প্রথম হয়েছেন গোদাগাড়ীর তামজিদ আহমেদ এবং হৃদয় খান দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে পবার পারভেজ প্রথম এবং চারঘাটের রোহান দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে প্রথম হয়েছেন গোদাগাড়ীর হৃদয় খান। দ্বিতীয় হয়েছেন গোদাগাড়ীর তামজিদ আহমেদ। ৫০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে দুর্গাপুরের রাইম রহমান প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন জাহিদ হাসান। ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে তানোরের পলাশ আহমেদ প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন রনা খান। ৫০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে চারঘাটের ফয়সায় আহমেদ প্রথম এবং সজিব আহমেদ দ্বিতীয় হয়েছেন। তরুণী ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইলে চারঘাটের আনিকা খাতুন প্রথম এবং মোহনপুরের সাধনী বিশ্বাস দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে মোহনপুরের নিপা বিশ্বাস প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন চারঘাটের আনিকা খাতুন। ২০০ মিটার ফ্রি স্টাইলে পবার মিম আক্তার প্রথম এবং তন্নী খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে চারঘাটের আনিকা খাতুন প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন তানোরের আসমা খাতুন। ১০০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে পবার মিম আক্তার প্রথম এবং তন্নী খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে গোদাগাড়ী প্রতিমা প্রথম এবং তানোরের আসমা খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ১০০ মিটার ব্রেস্ট স্ট্রোকে পবার মিম আক্তার প্রথম এবং তন্নী খাতুন দ্বিতীয় হয়েছেন। ৫০ মিটার বাটার ফ্লাইয়ে চারঘাটের আনিকা খাতুন প্রথম এবং গোদাগাড়ীর ধরাসূচি দ্বিতীয় হয়েছেন। ব্যাডমিন্টন তরুণ এককে বাগমারার বিজয় হালদার চ্যাম্পিয়ন এবং তানোরের জয়নাল আবেদীন আল আমিন রানারআপ হয়েছেন। তরুণী একেক চারঘাটের অনন্যা খাতুন চ্যাম্পিয়ন এবং তানোরের দিবা রায় রানারআপ হয়েছেন। অ্যাথলেটিকস তরুণ বিভাগে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে প্রথম হয়েছেন পবার ইয়াসিন আহমেদ। মোহনপুরের শাহরিয়ার জয় দ্বিতীয় হয়েছেন। ২০০ মিটার স্প্রিন্টে পবার ইয়াসিন আহমেদ প্রথম এবং ফারহান শাহরিয়ার জয় দ্বিতীয় হয়েছেন। ৪০০ মিটার দৌঁড়ে পবার মিনহাজ হোসেন শুভ প্রথম এবং বাঘার তানভীর আহমেদ দ্বিতীয় হয়েছেন। ৮০০ মিটার দৌঁড়ে বোয়ালিয়ার নাজিম ফয়সাল সদয় প্রথম এবং পবার মিনহাজ হোসেন শুভ দ্বিতীয় হয়েছেন। ১৫০০ মিটার দৌঁড়ে বোয়ালিয়ার নাজিম হায়দার সদয় প্রথম এবং দুর্গাপুরের সিয়াম আলী দ্বিতীয় হয়েছেন। লং জাম্পে গোদাগাড়ীর হাবিবুর রহমান প্রথম এবং দ্বিতীয় হয়েছেন তানোরের ইনসান আলী। হাই জাম্পে তানোরের ইনসান আলী প্রথম এবং গোদাগাড়ীর হাবিবুর রহমান দ্বিতীয় হয়েছেন। শটপুটে তানোরের ইনসান আলী প্রথম এবং পবার সিয়াম আলী দ্বিতীয় হয়েছেন। তরুণী অ্যাথলেটিকসে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে প্রথম হয়েছেন বোয়ালিয়ার শামসুর নাহার বৈশাখী। পবার সাবরিনা আরফিন মৌ দ্বিতীয় হয়েছেন। ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বোয়ালিয়ার শামসুন নাহার বৈশাখী প্রথম এবং মোহনপুরের মুনমুন রায় দ্বিতীয় হয়েছেন। ৪০০ মিটার দৌঁড়ে পবার ধরাসূচি কুজুর প্রথম এবং বোয়ালিয়ার স্মৃতি দ্বিতীয় হয়েছেন। ৮০০ মিটার দৌঁড়ে বোয়ালিয়ার স্মৃতি প্রথম এবং গোদাগাড়ীর ফারজানা আক্তার দ্বিতীয় হয়েছেন। ১৫০০ মিটার দৌঁড়ে বোয়ালিয়ার স্মৃতি প্রথম এবং গোদাগাড়ীর ফারজানা দ্বিতীয় হয়েছেন। লং জাম্পে পবার সানজিদা আক্তার শান্তা প্রথম এবং সাবরিনা আরফিন মৌ দ্বিতীয় হয়েছেন। হাই জাম্পে গোদাগাড়ীর আকিবা প্রথম এবং বাগমারার সাদিয়া দ্বিতীয় হয়েছেন। শটপুটে পবার সানজিদা আক্তার শান্তা প্রথম এবং শারমিন আক্তার দ্বিতীয় হয়েছেন।
অন্যদিকে চাপাইনবাবগঞ্জে ডাঃ এএম মেসবাহ-উল হক স্টেডিয়ামে গেমসের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিব খান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আহমেদ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রওশন আলী উপস্থিত ছিলেন। ব্যাডমিন্টনের তরুণ বিভাগের খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই ইভেন্টে ভোলাহাট উপজেলাকে হারিয়ে শিবগঞ্জ উপজেলা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। মাদারীপুর পুলিশ লাইন মাঠে ফুটবলের তরুণ বিভাগে কালকিনি উপজেলাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন সদর উপজেলা। তরুণী বিভাগে রাজৈর উপজেলাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন মাদারীপুর সদর। সরকারী নাজিমউদ্দিন কলেজে মাঠে হ্যান্ডবলের তরুণী বিভাগে রাজৈর উপজেলাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন মাদারীপুর সদর উপজেলা।
চট্টগ্রামে সিজেকেএস জিমন্যাশিয়ামে আজ সকালে তায়কোয়ানডো প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন সিজেকেএস যুগ্ম সম্পাদক ও তায়কোয়ানডো কমিটির চেয়ারম্যান মো. মশিউর রহমান চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিজেকেএস সহ-সভাপতি ও গেমসের আন্তঃউপজেলা চট্টগ্রাম পর্বের কো-অর্ডিনেটর মো. হাফিজুর রহমান। এর আগে চট্টগ্রাম জেলা পর্যায়ে শুরু হয়েছে ফুটবল, উশু ও হ্যান্ডবল ইভেন্ট। এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ফুটবলের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ সাইক্লিং ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ তাহের উল আলম চৌধুরী স্বপন। উশু ইভেন্টের উদ্বোধন করেন সিজেকেএস সহ-সভাপতি এডভোকেট শাহিন আফতাবুর রেজা চৌধুরী। হ্যান্ডবল ইভেন্টের উদ্বোধন করেন সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য ও হ্যান্ডবল কমিটির চেয়ারম্যান সৈয়দ আবুল বশর। অন্যদিকে নীলফামারী জেলা পর্যায়ের খেলা শেষ হয়েছে। শেখ কামাল স্টেডিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক পঙ্কজ ঘোষ। ফুটবলের তরুণ ও তরুণীর ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নীলফামারী সদর উপজেলা। তরুণ ফুটবলে নীলফামারী সদর উপজেলা দল ৪-২ গোলে কিশোরগঞ্জ উপজেলাকে হারিয়েছে। তরুণী ফুটবলের ফাইনালে সদর উপজেলা দল ৩-০ গোলে হারায় ডোমার উপজেলাকে।





মুক্তআলো২৪.কম

আরও পড়ুন
খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত