ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ || ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭
Breaking:
পরীক্ষা স্থগিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের      ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস শুরু, হল খুলছে ১৭ মে      বাঙালির স্বাধীন রাষ্ট্র ভাবনার জন্ম একুশের ঔরসেই:অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব(স্বপ্নীল)     
Mukto Alo24 :: মুক্ত আলোর পথে সত্যের সন্ধানে
সর্বশেষ:
  লেখক মুশতাক আজিমপুরে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন        রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা করতে ইউএনএইচআরসি’র প্রতি মোমেনের আহ্বান        আন্দামানে উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে পাঠাতে চায় ভারত        ষড়যন্ত্রকারীরা সব সময় সক্রিয় :স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী     
৮০

২১ ফেব্রুয়ারিতে প্রতি ইঞ্চিতে নজরদারি, তিন স্তরের নিরাপত্তা

মুক্তআলো২৪.কম

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১  


২১ ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘিরে সুনির্দিষ্ট কোনো হুমকি নেই জানিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, তারপরও জঙ্গি কার্যক্রমের ওপর কঠোর নজরদারি রাখা হবে। তিন স্তরের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার পরিদর্শন শেষে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রতি ইঞ্চি সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে সার্বক্ষণিক নজরদারি করা হবে। দিবসটি ঘিরে সুনির্দিষ্ট হুমকি না থাকলেও জঙ্গি কার্যক্রমের ওপর কঠোর নজরদারি রাখা হবে। জঙ্গিরা এমন দিবসগুলোতে আন্তর্জাতিক দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করে। যা আমাদের নজরদারিতে রয়েছে। তবে মাস্ক ছাড়া প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

তিনি আরো বলেন, বিশেষ পরিস্থিতিতে আমরা এবার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করতে যাচ্ছি। চারিদিকে করোনা পরিস্থিতি, ভ্যাকসিনেশন চলছে, তাতে ভীতি রয়েছে। যে কারণে এবার রাজনৈতিক পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৫ জন এবং ব্যক্তি পর্যায়ে দুজনের বেশি একসঙ্গে শহীদ মিনারে না আসার অনুরোধ করা হচ্ছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও শহীদ মিনার এলাকায় যান চলাচল বরাবরের মতো নিয়ন্ত্রণ করা হবে। সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

২১ ফেব্রুয়ারি ঘিরে জঙ্গিবাদী কার্যক্রম নজরদারি রাখা হচ্ছে কি-না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, সাধারণত এ ধরনের দিবসগুলো উপলক্ষে আন্তর্জাতিক দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ছোট ঘটনা ঘটিয়ে হলেও দৃষ্টি আকর্ষণের একটা চেষ্টা থাকে। শহীদ দিবস বাঙালির আবেগের একটি বড় জায়গা। এখানে ছোট্ট একটি ঘটনা ঘটাতে পারলেও আন্তর্জাতিক দৃষ্টি আকর্ষণ করা যায়। জঙ্গি কার্যক্রম বা গতিবিধি নজরদারির জন্য আমাদের সাইবার ইউনিটগুলো সক্রিয় রয়েছে। আমাদের সর্বোচ্চ প্রস্ততি আছে। আমরা মনে করি না এ ধরনের কোনও ঘটনা ঘটানোর সাহস তারা পাবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাউন্টার টেরোরিজম প্রধান ও ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম, গোয়েন্দা প্রধান এ কে এম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) কৃঞ্চপদ রায়, রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান ও ডিএমপি মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ইফতেখায়রুল ইসলাম।

 

মুক্তআলো২৪.কম

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত